আমার সম্বন্ধে - মুই রাজবংশী
November 29, 2021

আমার সম্বন্ধে

আমা রাজবংশী বা কোচ-রাজবংশী মানষী গীলা বাংলাদেশের রংপুর ও রাজশাহী অঞ্চল, পশ্চিমবঙ্গের ছয়টা জেলা কোচবিহার, জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার, দার্জিলিং জেলার সমতল অঞ্চল, উত্তর দিনাজপুর, দক্ষিণ দিনাজপুর আর মালদহের জেলার খানিক জাগাত থাকি। আসাম ও নেপালেও আমার রাজবংশী জন গোষ্ঠীর লোকজন আছে। 

রাজবংশী হইল এমন একটা সম্প্রদায় যেইটা মূলত উত্তরবঙ্গ এবং তার আসে পাশের এলকাত দেখা যায়। 

প্রশ্নটা হইল রাজবংশী কি একটা গোষ্ঠী, উপজাতি, সংগঠন না জাতি ?

রাজবংশীরা  স্বভাবে অল্প খানিক লাজুক আর উমরা অন্যের কাছত নিজেকে প্রকাশ কারীর চায় না। 

রাজবংশী কথাটার মূল মানে হইল রাজার বংশধর। রাজবংশী গিলার একটা নিজের ভাষা আর সাংস্কৃতিক এতিহ্য আছে। কোচ আর রাজবংশী দুইটা আলাদা আলাদা জাতি হইলেও তারা এক মহান রাজার দ্বারা মিলিত হয় এবং কোচ রাজবংশী নাম বিখ্যাত হয়। 

আমা রাজবংশী গিলার একটা ইতিহাস আছে কিন্তু আমা গিলার মধ্যে একমত না থাকায় আজিকা সেইটা ঢিলা হয়া গেইছে তাই রাজবংশী গিলার উন্নতি বন্ধ হয় গেইছে । বেশিরভাগ রাজবংশী গীলা আইজকা কৃষিজীবী হয় আছে। 

রাজবংশী গিলার  মধ্যেও অনেক ভাগ আছে যেমন হইল কোচ রাজবংশী, পৌন্ড্র রাজবংশী, মেচ রাজবংশী, নেওয়ার রাজবংশী, ঠাকুরি রাজবংশী এবং খাতাহা রাজবংশী। এগিলা ছাড়াও আরো কোচ রাজবংশী গিলার উপজাতি হিসাবে আছে আমার উত্তরবঙ্গত যেমন সাধুপালিয়া, বাবুপালিয়া, দেশী, দোমাসির, মোদাসি, জলুয়া, টঙ্গরিয়া, খোপরিয়া, গোবরিয়া, কাঁটাই, ধলাই, টিয়ার ও কোচ। 

রংপুরী হইল একটা  ইন্ডিক ভাষা যা বাংলাদেশের দশ কোটি রাজবংশী মানুষ এবং ভারতের পাঁচ মিলিয়ন লোক এই ভাষাত কথা কয়, তারা রাজবংশী নামে পরিচিত। এই মানষি গীলা দোভাষী বাংলা বা অসমীয়া ভাসাত কথা কয়। 

রংপুরী গিলার অনেক নামে পরিচিত সেগুলা হইল রংপুরী, বাহে বাংলা, আঁচলিট বাংলা, কামতা, পোলিয়া। ভারতত কামতাপুরী, দত্ত, রাজবাংসি, রাজবংশী, রাজবংশী, রাজবংশী, গোলপাড়িয়া, কোচ রাজবংশী।

এই ভাষার আর একটি নাম হিল তাজপুরী। ইটের প্রধান উপভাষা হইল পশ্চিমা রাজবংশী, মধ্য রাজবংশী, পূর্ব রাজবংশী এবং পার্বত্য রাজবংশী। 

নেপালের রাজবংশী গীলাক ঝাপালি কোয়া হয়। উমা রাজবংশী বা সিংহ দেয় টাইটেল দেয় রায়, বর্মন, সরকার ইত্যাদি টাইটেলের বদলে। রাজবাংশী গিলার  সিংহ টাইটেল উত্তরবঙ্গতেও পাওয়া যায়।

 ইতিহাস এর  বিখ্যাত রাজবংশী রাজা রানী 

কোচ রাজবংশের কয়েকজন শাসক, রাজা, রানী, রাজকুমার এবং রাজকন্যারা গীলা হইলেক মহারাজা নারায়ণারায়ণ, যুবরাজ চিলারায়, মহারাণী গায়ত্রী দেবী। সিডলির মহারাজা অজিত নারায়ণ দেব ইমাও কোচ রাজবংশেরও অংশ ছিল। 

রাজবংশী গিলার ধর্ম 

ধর্মীয় বিশ্বাস অনুসারে, আমা রাজবাংশী গীলা হিন্দু।